কেমন আছেন শাবানা আজমি? হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে জানালেন বনি কাপুর

অভিনেত্রী শাবানা আজমি কে ঘুমের ওষুদ দিয়ে রাখা হয়েছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন ভয়ের কোনও কারণ নেই। তবে যন্ত্রণা লাঘবের জন্যই ঘুমের ওষুধ দিয়ে রাখা হয়েছে। শাবানা আজমির সঙ্গে দেখা করার পর ‘মুম্বই মিরর’-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে একথাই জানিয়েছেন বনি কাপুর। 

বনি কাপুর আরও জানান, ”জাভেদ আখতার, শাবানা আজমির ভাই বাবা আজমি, এবং ননদ তনভি ছাড়া ICU-কে কাউকেই ঢুকতে দিচ্ছেন না চিকিৎসকরা। তবে শাবানা আজমি সকলের সঙ্গেই কথা বলেছেন, সকলকে চিনতেও পেরেছেন।

তবে তাঁর শরীরে ভিতরে কোনওরকম আঘাত রয়ে গিয়েছে কিনা জানতে চিতিৎসকরা তাঁকে নজরদারির মধ্যেই রেখেছেন। তবে তিনি একজন লড়াকু মহিলা, আমার মনে হয় উনি সমস্তরকম বিপদ থেকে নিজেকে বের করে আনতে পারবেন বলেই আমার বিশ্বাস।”

আরও পড়ুন: মিশাল কৃপালানির সঙ্গে প্রেম, সম্পর্কের কথা খোলসা করলেন আমির কন্যা

অন্যদিকে শাবানা আজমি যে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন, সেখান থেকে বেরোনার পর পরিচালক, অভিনেত্রী সতীশ কৌশিক বলেন, ”শাবানাজীর শারীরিক অবস্থার অনেকটা উন্নতি হয়েছে। ওনার সমস্ত রকম শারীরিক পরীক্ষা নিরীক্ষার রিপোর্টও ঠিক আছে। জাভেদ স্যার ওনার পরিবারের লোকজনও এখন অনেকটাই নিশ্চিন্ত। ঈশ্বর করুণাময়।”

শাবানা আজমি
আহত শাবানা আজমি

ইতিমধ্যেই শাবানা আজমিকে দেখতে হাসপাতালে গিয়েছিলেন জাভেদ আখতারের প্রাক্তন স্ত্রী হানি ইরানি, তাঁদের দুই সন্তান ফারহান আখতার ও জোয়া আখতার। গিয়েছিলেন ফারহানের প্রাক্তন স্ত্রী অধুনা ভবানি ও হবু স্ত্রী শিবানী দান্ডেকর।

পরিচালক আশুতোষ গোয়ারিকর ও তাঁর স্ত্রী সুনীতা। পরিচালক প্রযোজক ফারহান খান, ভিকি কৌষস, জিতেন্দ্র সহ আরও অনেকেই। শাবানার সুস্থতা কামনা করে টুইট করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

ছবি – জাভেদ আখতারের ৭৫ -এর জন্মদিন বিশেষ এক্সিবিশনে হাজির হয়েছিল গোটা পরিবার 

শনিবার  মুম্বই-পুনে এক্সপ্রেসওয়েতে একটি টোল প্লাজার কাছে একটি ট্রাকের পেছনে গিয়ে ধাক্কা মারে শাবানার গাড়ি। সংঘর্ষে শাবানার গাড়ির সামনের অংশ একেবারে দুমড়ে যায়।  গাড়িতে শাবানা আজমির পাশাপাশি তাঁর স্বামী জাভেদ আখতারও ছিলেন। তবে জাভেদ আখতার এই দুর্ঘটনায় বিশেষ জখম হননি।

আরও পড়ুন: কেরিয়ারে বাধা ভালোবাসা? ঠোঁটে-ঠোঁট রেখে কার্তিক-সারার বন্য প্রেম

এদিকে, শাবানার গাড়ির চালক অমলেশ কামতের বিরুদ্ধে এফআইআর করেছে পুলিস।  ট্রাক ড্রাইভার শাবানার গাড়ির চালকের বিরুদ্ধে মারাত্মক অভিযোগ করেছেন। তাঁর অভিযোগ, শাবানার গাড়ির চালক অমলেশ কামত প্রচণ্ড জোরে গাড়ি চালাচ্ছিলেন।

গতি এতটাই বেশি ছিল যে তিনি বেসামাল হয়ে পড়েন। এর পর নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ট্রাকের পিছনে ধাক্কা মারেন। দুর্ঘটনায় সেই ট্রাকের পিছনের অংশে ক্ষতি হয়েছে। শাবানা আজমির গাড়ির অবস্থা তো খুবই খারাপ।

Facebook Comments