SaifAliKhan

‘তানাজি’-র সাফল্যে ভাসছে গোটা ইউনিট। কিন্তু বক্স অফিসে যতই সাফল্য পাক অজয় দেবগণ, কাজল, সইফ আলি খানের তানাজি, সোশ্যাল মিডিয়ায় কটাক্ষের মুখে পড়তে হচ্ছে উদয়ভান সিংহ রাঠৌরকে।

সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে সইফ বলেন, ব্রিটিশরা যতদিন আসেনি ততদিন ‘ভারত’ বলে কোনও ধারণা ছিল না।

আরও পড়ুন: টিকটক ভিডিওতে অ্যাসিড পোড়া ‘লুক’ চ্যালেঞ্জ, সমালোচনার মুখে দীপিকা

বক্স অফিসে ১৫০ কোটির বাউন্ডারি পেরিয়ে গিয়েছে ওম রাউত পরিচালিত তানাজি । এখনও দৌড় জারি রয়েছে তানাজির। তবে মাঠের বাইরে ফাউল করে নেটিজেনদের কাছে লাল কার্ড দেখতে হচ্ছে সইফকে।

সইফের সাক্ষাৎকারের একটি ছোট্ট অংশের ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। সেটি রিটুইট করে চলছে একের পর এক সমালোচনা।

সাক্ষাৎকারে সইফকে বলতে শোনা যায়, “আমার মনে হয় না ব্রিটিশরা আসার আগে ভারতের ধারণাটাই ছিল।”এই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই  ট্রোলের শিকার হতে হচ্ছে সইফকে।

পরিচালক, লেখক বিবেকরঞ্জন অগ্নিহোত্রী, ইন্টারভিউয়ের ওই অংশটি তুলে টুইট করে দেন। পোস্টে সইফের মন্তব্যের সমালোচনা করার পাশাপাশি নাম না করে যিনি সাক্ষাৎকার নিচ্ছিলেন সেই ফিল্ম সমালোচক অনুপমা চোপড়ারও সমালোচনা করেন।

বিবেকের পোস্টকে রিটুইট করে এক ইউজার লিখেছেন, ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি আসে ১৬০০ সালে। কলম্বাস তার আগে ১৪৯২ সালে ভারত আবিষ্কার করেন। ভারত মহাসাগরের নামকরণ হয় ১৫১৫ সালে।

আরও পড়ুন: মিশাল কৃপালানির সঙ্গে প্রেম, সম্পর্কের কথা খোলসা করলেন আমির কন্যা

লেখক তারেক ফতেহ-ও সইফের সমালোচনা করেন এমন মন্তব্যের জন্য। তাঁকে ইতিহাসবিদ বলে কটাক্ষ করে বলেন, শেষ বার উনি যখন ইতিহাস নিয়ে নাড়াচাড়া করেন সেই সময় ছেলের নাম তৈমুর রাখেন।

এছাড়াও প্রচুর টুইটার ইউজার সইফের সমালোচনা করে একের পর এক টুইট করেন।

Facebook Comments