ইন্টারনেট বন্ধে মানুষের ‘মৌলিক অধিকার’-ই শুধু খর্ব হয়নি, ক্ষতি হয়েছে কয়েক হাজার কোটি টাকা

ইন্টারনেট ব্যবহার দেশের মানুষের মৌলিক অধিকার। কাশ্মীরে ৩৭০ রদের পর থেকে সেখানে ইন্টারনেট বন্ধ। এনিয়ে হওয়া একটি মামলায় শুক্রবার এই মন্তব্য করেছে শীর্ষ আদালত। পাশাপাশি গত এক বছরে গোট দেশে ইন্টারনেট বন্ধের ফলে ক্ষতি হয়েছে ৯,২২৩ কোটি টাকা।

এমনই এক রিপোর্ট প্রকাশ করেছে টপ ১০ ভিপিএন। অর্থাত্ ইন্টারনেট বন্ধ দেশের মানুষের মৌলিক অধিকার হরণের পাশাপাশি আর্থিক ক্ষতিও করেছে বিস্তর।

এনআরসি-সিএএ নিয়ে রাজ্যে বিক্ষোভের জেরে একাধিক জেলায় ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখা হয় গত মাসে। গত ৫ অগাস্ট থেকে জম্মু ও কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা রদের পর গত ৫ মাস সেখানে ইন্টারনেট বন্ধ।

ফলে ক্ষতির পরিমাণ বেড়েছে লাফিয়ে। ইন্টারনেট বন্ধের দৌড়ে কেবলমাত্র  ইরাক ও সুদানের পেছনেই রয়েছে ভারত। গত বছর মোট ৪,১৯৬ ঘণ্টা ইন্টারনেট বন্ধ ছিল ভারতের বিভিন্ন অংশে।

শুক্রবার তার শুনানিতে ইন্টারনেট ব্যবহারকে মৌলিক অধিকার বলে মন্তব্য করেছে শীর্ষ আদালত। শুধু তাই নয়, বলা হয়েছে , বিশেষ কিছু পরিস্থিতি ব্যাতীত মানুষকে ইন্টারনেট থেকে বঞ্চিত করতে পারে না সরকার।

সংবিধানের ১৯(১)(এ) ধারা অনুযায়ী বাক স্বাধীনতাকে মৌলিক অধিকার বলে গণ্য করা হয়েছে।  ইন্টারনেট ব্যবহার করে দেশের কোটি কোটি মানুষ তাদের বাক স্বাধীনতা প্রকাশ করে থাকেন।

সম্প্রতি রাষ্ট্রসংঘও দুনিয়ার প্রতিটি দেশকে তাদের নাগরিকদের জন্য ইন্টারনেট পরিষেবা মৌলিক অধিকার হিসেবে গণ্য করার আহ্বান জানিয়েছে। রাজ্যের মানুষের জন্য ইন্টারনেট ব্যবহারকে ন্যূন্যতম অধিকারের মর্যাদা দিয়েছে কেরল সরকার।   

সুত্র

Facebook Comments