সেরেনা উইলিয়ামস ও সানিয়া মির্জা

মা হওয়ার পর এই প্রথম টেনিসের কোর্টে ঝড় তুলে শিরোপা জিতলেন সেরেনা উইলিয়ামস ও সানিয়া মির্জা

সেরেনা উইলিয়ামস কে দিয়েই শুরু করা যাক।
২০১৭ সালের অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে তিন মাসের সন্তান গর্ভে নিয়ে শিরোপা জিতে সবার চোখ কপালে তুলে দিয়েছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের এই টেনিস তারকা।

মা হওয়ার পর টেনিস কোর্টে ফিরলেও শিরোপা জিততে যেন ভুলেই গিয়েছিলেন ২৩টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ী এই টেনিস তারকা (সেরেনা উইলিয়ামস) । কী ডব্লুটিএ টুর্নামেন্ট, কী গ্র্যান্ড স্ল্যাম টুর্নামেন্ট, সব জায়গা থেকেই সেরেনা ফিরেছেন খালি হাতে।

২০১৮ ও ২০১৯, টানা দুই বছর ইউএস ওপেন আর উইম্বলডনে দুই বার করে রানার্স আপ হয়েছিলেন। অবশেষে মা হওয়ার পর প্রথম শিরোপার দেখা পেয়েছেন নারী টেনিসের কিংবদন্তি এই তারকা (সেরেনা উইলিয়ামস)।

আরও পড়ুন: চতুর্থ শিল্পবিপ্লব বদলে দেবে মানুষের নৈতিকতা, ডিজিটাল প্রযুক্তি আনবে ব্যাপক পরিবর্তন

গত সপ্তাহে অকল্যান্ড ক্লাসিকের ফাইনালে স্বদেশি জেসিকা পেগুলাকে সরাসরি সেটে হারিয়ে (৬-৩, ৬-৪) শিরোপা জিতেছেন ৩৮ বছর বয়সী এই তারকা (সেরেনা উইলিয়ামস)।

শিরোপা জিতে টুর্নামেন্ট থেকে পাওয়া পুরো প্রাইজমানি অস্ট্রেলিয়ার দাবানলে ক্ষতিগ্রস্তদের দান করে আবারও সবার মন জিতে নিয়েছেন সেরেনা। পুরো ৪৩ হাজার ডলার দান করে দিয়েছেন তিনি।

এদিকে মাতৃত্বকালীন ছুটি কাটিয়ে এবারই প্রথম খেলতে নেমেছিলেন কোর্টে। কোর্টে নিজের প্রত্যাবর্তনটা হয়তো এর চেয়ে মধুর হতো না ভারতীয় টেনিস-কন্যা সানিয়া মির্জার জন্য। সেরেনার পথ অনুসরণ করে মা হিসেবে হোবার্ট ইন্টারন্যাশনাল টুর্নামেন্টের শিরোপা জিতেছেন তিনিও, নারী দ্বৈতে, নাদিয়া কিচেনকের সঙ্গে।

এক ঘণ্টা একুশ মিনিটের লড়াইয়ে চীনের ঝাং শুয়াই আর পেং শুয়াইকে সরাসরি সেটে (৬-৪, ৬-৪) হারিয়েছেন তাঁরা। এই নিয়ে নারী দ্বৈতে ৪২ তম ডব্লুটিএ শিরোপা জিতলেন সানিয়া।

আরও পড়ুনঃ ভারতের হয়ে প্রথম ১০০ ওয়ানডে খেলেছেন নারী ক্রিকেটার আনজুম চোপড়া

শিরোপা জিতে সানিয়া-সেরেনা দুজনই যেন অনুচ্চারে জানিয়ে গেলেন, চাইলেই মাতৃত্বের আনন্দ আর ক্যারিয়ারের সাফল্য সুধা একসঙ্গে উপভোগ করা যায়। দুটি জিনিস একে অন্যের প্রতিবন্ধক নয়, বরং পরিপূরক।

সামনেই অস্ট্রেলিয়ান ওপেন। এই দুই ‘মা’ ( সেরেনা উইলিয়ামস ও সানিয়া মির্জা ) এর ফর্মে ফেরা নিশ্চিতভাবেই চিন্তার ভাঁজ ফেলবে অন্যান্য নারী টেনিস তারকাদের কপালে!


সুত্র

Facebook Comments