পাইপ ফেটে হোটেলের ঘরে ঢুকল ফুটন্ত জল, ঘুমের মধ্যেই সেদ্ধ হয়ে গেলেন ৫ আবাসিক

ঘুমন্ত অবস্থাতেই গরম জলে সেদ্ধ হয়ে গেলেন সবাই। এক দুজন নয়। এক শিশু-সহ ৫ জনের প্রাণ কেড়ে নিল রাশিয়ার এক হোটেলে মধ্যরাতের এক দুর্ঘটনা। ভয়ঙ্কর ওই ঘটনাটি ঘটেছে রাশিয়ার পেরম শহরের এক হোটেলে।

সোমবার মধ্যরাতে আচমকাই ফেটে যায় হোটেলের গরম জলের পাইপ। বিপুল পরিমাণ গরম জল বেরিয়ে তা ঢুকে পড়ে বেসমেন্টে হোটেলের ঘরে।  ঘুমের মধ্যেই গরম জলে সেদ্ধ হয়ে যান ৫ জন।  উল্লেখ্য, একটি আবাসনের বেসমেন্টে ছিল মিনি হোটেল কারামেল নামে ওই হোটেলটি।

আরও পড়ুন: ইনফ্লুয়েঞ্জার প্রকোপ দিনের পর দিন ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে, শিশুকে বাঁচান ইনফ্লুয়েঞ্জা থেকে

পাঁচ জনের পুড়ে যাওয়ার পাশাপাশি গুরুতর আহত হয়েছেন আরও ৩ জন। নিকটবর্তি হাসপাতালের চিকিত্সক আন্দ্রে বাবিকভ সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন, ৩৩ বছরের এক মহিলা আবাসিকের দেহের ৩৫ শতাংশ পুড়ে গিয়েছে।  এছাডা়ও ২৮ বছর ও ৩৫ বছরের দুই তরুণের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

আরও পড়ুন: টিকটক ভিডিওতে অ্যাসিড পোড়া ‘লুক’ চ্যালেঞ্জ, সমালোচনার মুখে দীপিকা

এদিকে ওই ঘটনায় নড়েচড়ে বসেছে প্রশাসন। প্রদেশের গভর্নর ম্যাক্সিম রেসেন্টিকভ জানিয়েছেন, এনিয়ে তদন্ত হবে। দেখা হবে কার গাফিলতিতেই এতবড় ঘটনা ঘটল।  উদ্ধারকারী দলকে ধন্যবাদ দিতেই হবে।  উদ্ধারকাজে গিয়ে তাদের দেহও পুড়ে গিয়েছে।

Facebook Comments