সাঈদীর মুক্তি চেয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস, মাদরাসা অধ্যক্ষ গ্রেপ্তার

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে নুরুল কবির নামের এক মাদ্রাসা অধ্যক্ষকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি ও জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমির দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মুক্তি চেয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট দিয়েছিলেন তিনি।

গ্রেপ্তার নুরুল কবির যোবাইদিয়া মহিলা মাদ্রাসার অধ্যক্ষ। তাঁর বাড়ি সীতাকুণ্ড পৌর সদরের সোবহানবাগে। গতকাল সোমবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে পুলিশ তাঁকে বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে।

জানা যায়, অধ্যক্ষ নুরুল কবির গত শনিবার মানবতাবিরোধী সাজাপ্রাপ্ত আসামি সাঈদীর মুক্তি চেয়ে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছিলেন। স্ট্যাটাসটি দেয়ার পর তা মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে পড়ে।

তার পোস্টকৃত স্ট্যাটাসে ছাত্রলীগ-যুবলীগের নেতা-কর্মীরা নানা রকম তীর্যক মন্তব্য করতে থাকে। পরে নানামুখী চাপে পড়ে তিনি স্ট্যাটাসটি ডিলেট করে দেন। এ নিয়ে স্থানীয় দু’টি পত্রিকায় সংবাদও প্রকাশিত হয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে সোমবার রাতে বারৈয়াঢালা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহবায়ক সাইফুল ইসলাম সীতাকুণ্ড মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

পুলিশ জানিয়েছে, গতকাল অধ্যক্ষ নুরুল কবিরকে আসামি করে বারৈয়ারঢালা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুল ইসলাম বাদী হয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেন। এর আগে ২০১৫ সালে নাশকতার অভিযোগে তাঁর বিরুদ্ধে চারটি মামলা হয়েছিলো।

বিষয়টি নিশ্চিত করে মডেল থানার ওসি (তদন্ত) শামিম শেখ বলেন, অভিযুক্ত মাদরাসার অধ্যক্ষ নুরুল কবিরকে তথ্য প্রযুক্তি আইনের ধারায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাকে আজ আদালতে চালান দেয়া হবে।

আরও পড়ুন:

লকডাউন ৩.০: কেউ মদ কিনলেন ৯৫ হাজারের, কেউ ৫২ হাজার টাকার

সাধারণ ছুটির মেয়াদ বাড়লেও ব্যাংক খোলা থাকবে আগের মতোই

৬০ নয়, এপ্রিলের বেতন ৫ শতাংশ বাড়িয়ে মোট মজুরির ৬৫ শতাংশ পরিশোধ করা হবে

Facebook Comments