জ্বর ঠোসা

জ্বর ঠোসা সারানোর উপায় জানতে হলে পড়তে হবে, সারা বছর কিংবা শীতে ঠোঁটে বা নাকের পাশে জ্বর ঠোসা হয়। সাধারণত জ্বরের পরে এটি দেখা যায়। জ্বর ঠোসা হলে দেখতে যেমন খারাপ লাগে, ব্যথাও হয় মারাত্মক। বিশেষজ্ঞরা বলেন, জ্বর ঠোসা ছোঁয়াচে। আর জ্বর ঠোসা সারতেও সময় লাগে।

অনেকে আবার বলেন ভিটামিনের অভাবেই জ্বর ঠোসা হয়। তবে কারণ যাই হোক না কেন, জেনে নিন বিরক্তিকর, যন্ত্রণাদায়ক জ্বর ঠোসা সারানোর উপায়

১) অ্যান্টি ভাইরাল উপাদান সমৃদ্ধ টি ট্রি অয়েল তুলোয় নিয়ে জ্বর ঠোসায় লাগান। দিনে বেশ কয়েকবার লাগান আর ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকিয়ে সেরে উঠুন।

২) সুতির কাপড় অ্যাপেল সিডার ভিনিগার ভিজিয়ে জ্বর ঠোসার ওপরে লাগান। দেখবেন দ্রুত উপকার পাবেন।

৩) রসুনের কোয়া বেটে সরাসরি ক্ষত স্থানে দিনে অন্তত দুই থেকে তিনবার লাগান। দেখবেন দ্রুত উপকার পাবেন।

আরও পড়ুন: মেয়েদের ভ্রমণের ইচ্ছা জাগিয়ে তুলতে চাই, ওয়ান্ডার উইমেনের প্রতিষ্ঠাতা সাবিরা মেহেরিন

৪) ক্ষতস্থানে অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল সমৃদ্ধ মধু লাগিয়ে রাখুন ৫ থেকে ১০ মিনিট। দিনে অন্তত দুবার ব্যবহার করুন। দেখবেন, জ্বর ঠোসা দ্রুত সেরে যাবে।

৫) জ্বর ঠোসা আক্রান্ত স্থানে অ্যান্টিবায়োটিক ক্রিম লাগান। দ্রুত সেরে যাবে।

এসব ঘরোয়া পদ্ধতিতে দ্রুত জ্বর ঠোসা সেরে যাবে। ব্যথাও কমে যাবে চটপট। তবে কোনও ভাবেই জ্বর ঠোসা আক্রান্ত স্থানে নখ লাগাবেন না।

সুত্র

Facebook Comments