indain-army

“গোটা কাশ্মীর ভারতের অংশ। এই নিয়ে কোথাও কোনও সন্দেহ নেই। পাকিস্তান কাশ্মীরের কিছু অংশে জবরদখল চালাচ্ছে, সেটা বন্ধ করা দরকার” কড়া ভাষায় পাকিস্তানকে এমনই জবাব দিলেন প্রাক্তন সেনাপ্রধান ও সড়ক পরিবহণ মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী ভি কে সিং।

তাঁর মতে পাক অধিকৃত কাশ্মীর নিয়ে যে কোনও রকম পদক্ষেপ নিতে তৈরি ভারতীয় সেনা। শুধু মাত্র তার বাস্তবায়ন ঘটানো সময়ের অপেক্ষা।

গিলগিট-বালতিস্তানের নির্বাচন নিয়ে কথা বলতে গিয়ে এদিন ভিকে সিং বলেন শুধু পাকিস্তানকেই সামলাতে পারছে না সেদেশের সরকার। সেদেশে সেনা ঠিক করে কীভাবে চলবে দেশ। তাই গিলগিট বালতিস্তান নিয়ে কথা বলার কোনও অধিকার পাকিস্তানের নেই।

ভারতের এই প্রাক্তন সেনাপ্রধানের দাবি, গোটা বিশ্বের কেউ পাকিস্তানকে সমর্থন করে না। অন্যদিকে, ভারত যেভাবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে এগিয়ে চলেছে, তা প্রশংসনীয়। করোনা ভাইরাসের আবহে বিশ্ব আজ মোদির নেতৃত্বে একজোট হয়েছে।

পাক অধিকৃত কাশ্মীর ভারতের অংশ বলে দাবি করে ভি কে সিং বলেন, তিনি ১২ বছর কাশ্মীরে ছিলেন। কাশ্মীরের পালস বোঝেন তিনি।

হান্দওয়াড়ার হামলা নিয়ে বলতে গিয়ে প্রাক্তন সেনাপ্রধান বলেন যার ক্ষতি হয়েছে, একমাত্র সেই ক্ষতির পরিমাণ বলতে পারে। বাইরের কাউকে সেই বিষয়ে মন্তব্য করতে দেওয়া যাবে না।

ভি কে সিং-এর দাবি তিনি ভারত সরকারকে কোনও পরামর্শ দেবেন না গিলগিট বালতিস্তান নিয়ে। সময় আসলেই সরকার নিজে থেকে পদক্ষেপ নেবে। সেই সময়ের জন্য ভারতীয় সেনা তৈরি হয়ে রয়েছে। যেদিন সুযোগ আসবে, সেনা নিজে থেকে পদক্ষেপ করবে।

সম্প্রতি পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্ট পাক-অধিকৃত কাশ্মীরের গিলগিট-বালতিস্তানের ভোট নিয়ে প্রশ্ন তুললে ভারত সেই প্রেক্ষিতে কড়া জবাব দিয়েছে। ভারত স্পষ্ট জানিয়েছে, গোটা জম্মু ও কাশ্মীর, লাদাখ এবং গিলগিট-বালতিস্তান ভীষণভাবে ভারতের অংশ।

এটি সুনিশ্চিত করতে গত ০৮-০৫-২০২০ শুক্রবার সেই দেশের টিভি চেনেল দুরদর্শন জম্মু ও কাশ্মীর, লাদাখ এবং গিলগিট-বালতিস্তান এর আবহাওয়া বার্তা সম্প্রাচার শুরু করেছে।

বিদেশমন্ত্রক পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্টের রায়ের প্রেক্ষিতে আরও জানিয়েছে, পাকিস্তানের এক্ষুনি সব অবৈধভাবে নেওয়া জায়গা ছেড়ে দেওয়া উচিত এবং সব জায়গা খালি করে দেওয়া উচিত।

শনিবার থেকেই দূরদর্শন, অল ইন্ডিয়া রেডিওতে পাক অধিকৃত কাশ্মীরের আবহাওয়া তথ্য সম্প্রচার করার কথা ছিল। এই তথ্যে মিলত মীরপুর, মুজফফরাবাদ, গিলগিটের মতো এলাকার আবহাওয়া সংক্রান্ত তথ্য।

ভারতের এই পদক্ষেপে নারাজ পাকিস্তান। ভারত দাদাগিরি করতে চাইছে বলে মত ইসলামাবাদের। গত বছর ভারতের প্রকাশ করা এক মানচিত্রে জম্মু কাশ্মীরকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল বলে চিহ্নিত করা হয়, সেখানে কাশ্মীরের অংশ হিসেবে দেখানো হয় গিলগিট বালতিস্তান ও লাদাখকে।

এরই মধ্যে ইন্ডিয়ান মেটারোলজিক্যাল ডিপার্টমেন্ট জানায় এবার থেকে পাক অধিক়ৃত কাশ্মীরের আবহাওয়ার যাবতীয় তথ্য দেওয়া হবে। কারণ তা ভারতের অংশ। নিজেদের প্রকাশিত বুলেটিনে আইএমডি জানায় এবার থেকে জম্মু- কাশ্মীর, লাদাখ, গিলগিট বালতিস্তান ও মুজফফরাবাদের আবহাওয়ার তথ্য দেওয়া হবে। উল্লেখ্য পাক অধিকৃত কাশ্মীরের রাজধানী মুজজফরাবাদ ও গিলগিট বালতিস্তান পাকিস্তানের জবরদখল করা কাশ্মীরের অন্যতম অংশ।

আরও পড়ুন:

গোপালগঞ্জে নতুন ৬ জনের করোনাভাইরাস পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে

অদৃশ্য এই প্রাণঘাতী ভাইরাসের অসময়ে এ দেশের কিছু মানুষের চুরির গল্প

লকডাউনে পশ্চিম-বঙ্গ কবিগুরুর জন্মদিন পালনে ভার্চুয়াল জগতকেই বেছে নিয়েছে

Facebook Comments