বিএনপির নেতা-কর্মীদের ওপর হামলা

রাজধানীর কাপ্তান বাজার এলাকায় বিএনপির নেতা-কর্মীদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে দুজন আহত হয়েছেন। শুক্রবার এশার নামাজের সময় এই ঘটনা ঘটে।

আহতে ব্যক্তিরা হলেন ৩৮ নম্বর ওয়ার্ডের বিএনপির সহসভাপতি রজ্জব আলী ও ঢাকা মহানগর ছাত্রদলের নেতা নুর আলম। তাঁদের স্থানীয় হাসপাতালে নেওয়া হয়। স্থানীয় বিএনপির অভিযোগ, ওই ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগ–সমর্থিত প্রার্থীর লোকেরা এই হামলার ঘটনার সঙ্গে জড়িত।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল বাশার প্রথম আলোকে বলেন, তাঁর স্ত্রীর পক্ষে প্রচার শেষে কাপ্তান বাজারের একটি মসজিদে কিছু নেতা-কর্মী এশার নামাজের জন্য প্রবেশ করেন আর বাইরে কয়েকজন অপেক্ষায় ছিলেন। বাইরে যাঁরা অবস্থান করছিলেন তাঁদের ওপর হঠাৎ করেই হামলা চালানো হয়। এতে এই দুজন আহত হন।

আর-পড়ুনঃ কংক্রিটের জঙ্গলে নতুন আশা দেখাচ্ছেন গবেষকেরা

আহত নুর আলম
আহত নুর আলম। ছবি: সংগৃহীত

আবুল বাশারের অভিযোগ, এই হামলার ঘটনার তদন্ত হওয়া দরকার। শনিবার হামলার ঘটনায় মামলা করবেন তাঁরা।

বাজারের যে স্থানে হামলার ঘটনাটি ঘটেছে এটি ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৩৮ নম্বর ওয়ার্ডে পড়েছে। এই ওয়ার্ডে বিএনপি–সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থী মেহেরুন্নেসা। তিনি ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল বাশারের স্ত্রী।

অন্যদিকে আওয়ামী লীগ–সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থী আহমদ ইমতিয়াজ মন্নাফি। এই কাউন্সিলর প্রার্থী ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমদ মন্নাফির ছেলে। আবু আহমদ মন্নাফি ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর।

আহমদ ইমতিয়াজ মন্নাফি প্রথম আলোকে বলেন, হামলার ঘটনাটি তিনি প্রথম এই প্রতিবেদকের কাছে শুনলেন। তাঁর রাজনৈতিক ভাবমূর্তিকে নষ্ট করার জন্য এবং ভোটারদের কাছে তাঁকে নেতিবাচক হিসেবে উপস্থাপন করতে এসব অভিযোগ করা হচ্ছে।


সুত্র

Facebook Comments