বিজ্ঞাপনে যতই মুখ ঢাকুক, জানেন কি বিপজ্জনক বাসন মাজার সাবান!
বিজ্ঞাপনে যতই মুখ ঢাকুক, জানেন কি বিপজ্জনক বাসন মাজার সাবান!

ব্যস্ত জীবন। দৌড়ের জীবন। কেরিয়ারের পেছনে ছোটার জীবন। আধুনিক লাইফস্টাইলে এটাই যেন দস্তুর। খাওয়া, ঘুমের সময়ও যেন বাড়ন্ত। আর গুছিয়ে রান্না করা তো বিলাসিতা

তেল চ্যাটচ্যাটে বাসন। পুড়ে যাওয়া কড়াই। দাগ তুলতে ভরসা বাসন মাজার সাবান। কিন্তু সাবানের কেমিকেল বিপদ ডাকছে না তো?

ব্যস্ত জীবন। দৌড়ের জীবন। কেরিয়ারের পেছনে ছোটার জীবন। আধুনিক লাইফস্টাইলে এটাই যেন দস্তুর। খাওয়া, ঘুমের সময়ও যেন বাড়ন্ত।

আর গুছিয়ে রান্না করা তো বিলাসিতা। সেখানে খাওয়ার আগে বা পরে জুত করে বাসন মাজার কথা তো ভাবতেই পারেন না এ প্রজন্মের মহিলারা।

আরও-পড়ুনঃ কিডনি সুস্থ রাখতে চাইলে মেনে চলুন এই ৫টি নিয়ম

আর কাজের মাসি যদি না বলে ডুব মারেন, তাহলে আরও বেড়ে যায় সমস্যা।

তখন একমাত্র উপায় লিকুইড ডিশ ওয়াশ। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বিপদ এখানেই। বাসন মাজার সাবানের কেমিকেল ডেকে আনছে ক্ষতি।

বিশেষজ্ঞরা যা বলছেঃ

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বাসন মাজার সাবানে থাকে প্রচুর ক্ষতিকর রাসায়নিক। এই সাবানে বাসন ধুয়ে সেই বাসনে দীর্ঘদিন খেতে থাকলে বিপদ।

আরও-পড়ুনঃজন্মনিয়ন্ত্রক অষুধ বাড়িয়ে দিতে পারে স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি! দাবি বিজ্ঞানীদের

বিশেষ করে যাঁদের অ্যালার্জি এবং র‍্যাশের সমস্যা আছে, তা বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা।

অনেক রাসায়নিক স্কিনে মিশে যায়। সেখান থেকে সরাসরি চলে যায় রক্তে।

শরীরে জমতে থাকে দূষিত পদার্থ। চামড়ার অসুখ, ঘুম ঘুম ভাব, মাথার যন্ত্রণা, ক্যানসারের সম্ভাবনা বেড়ে যেতে পারে বলে দাবি বিশেষজ্ঞদের।

হার্টের সমস্যা, ফুসফুসের সমক্রমণ, চোখের সমস্যাও হতে পারে।

Facebook Comments