সোনু সুদ

লকডাউনে আটকে পড়া পরিযায়ী শ্রমিকদের মসিহার ভূমিকা পালন করছেন অভিনেতা সোনু সুদ। এছাড়াও বিভিন্ন জায়গায় আটকে পড়া মানুষ টোল ফ্রি নম্বর এবং টুইটারের মাধ্যমে সোনুকে নানা রকম মেসেজ পাঠাচ্ছেন। অভিনেতার কাছে আসছে মজার কিছু অনুরোধও।

সম্প্রতি এক মহিলার থেকে অদ্ভুত রকমের একটি টুইট আসে পর্দার এই খলনায়ক এর কাছে। সেই মহিলা তাঁর স্বামীর সঙ্গে থাকতে থাকতে ব্যতিব্যস্ত হয়ে উঠেছেন। এবং এখন স্বামীর থেকে মুক্তি পেয়ে দূরে যাওয়ার কথা ভাবছেন। কিন্তু লক ডাউনের জন্য স্বামীর সঙ্গেই আটকে পড়েছেন তিনি। তাই সোনুর কাছে মহিলার অনুরোধ তাঁকে যদি কোনওভাবে তাঁর মায়ের কাছে পৌঁছে দিতে পারেন অভিনেতা। সোনু এই আবেদনের যা উত্তর দিয়েছে তা এখন রীতিমতো সোশ্যাল-মিডিয়ায় ভাইরাল।

মহিলা সোনুকে লিখেছেন, “জনতা কার্ফুর সময় থেকেই আমি আমার স্বামীর সঙ্গে আটকে থাকছি। আপনি দয়া করে ওকে কোথাও পাঠান না হলে আমায় আমার মার কাছে পৌঁছে দিয়ে আসুন। আমি ওর সঙ্গে আর থাকতে পারছি না।’

আরও-পড়ুনঃ করোনার রোগীদের নিয়ে যাবেন কোথায়

এর উত্তরে সোনু একটি মজার জবাব দিয়েছেন। তিনি লিখেছেন, “আমার কাছে আরো ভালো একটি উপায় আছে। আমি বরং আপনাদের দুজনকে একসঙ্গে গোয়া পাঠিয়ে দিই। কী বলেন!” সোনুর এই মজার উত্তর তাঁর ভক্তরা মুহূর্তে ভাইরাল করে দেয়।

তবে এরকম আরো নানা রকমের অদ্ভুত আবেদন এসে পড়ছে সোনু সুদ এর কাছে। আর তার কারণ হলো হাজার হাজার পরিযায়ী শ্রমিককে বাড়ি পাঠিয়েছেন তিনি।

কিছুদিন আগে সোনুকে এক মহিলা জানিয়েছেন আড়াই মাস ধরে তিনি কোনও বিউটি পার্লারে যেতে পারেননি। তাই তাঁকে কোনও একটা বিউটি পার্লারে পৌঁছে দেওয়ার অনুরোধ করেছেন তিনি।

সোনুর সেই ভক্ত টুইট করেন, “গত আড়াই মাস ধরে পার্লারে যেতে পারিনি। সোনু সুদ প্লিজ সাহায্য করুন, আমায় পার্লারে পৌঁছে দিন।”

আরও-পড়ুনঃ এক সময় কি তাহলে বিজ্ঞান মৃতকেও বাঁচিয়ে তুলতে পারবে বলে মনে করেন? কেন?

এর উত্তরে সোনু যা বলেছেন, তাও সাড়া ফেলেছে নেটিজেনদের মধ্যে। সোনু টুইট করেছেন, “সেলুন গিয়ে কী করবেন! সেলুনের লোকজনকে তো আমি গ্রামে ছেড়ে এলাম। ওঁদের পিছন পিছন গ্রামে যেতে চাও তো বলো।”

Facebook Comments