শীত কি তবে যাচ্ছে চলে?

কয়েক দিন আগেও শীত ছিল তীব্র। কাঁপুনিতে হাড়ে বাদ্য বাজার জোগাড়। আজ শনিবার হিম কমে একেবারে গা-সহা হয়ে এসেছে। রোদও আছে বেশ। শীত কি তবে বিদায় নিতে চলেছে?

মাত্র চার দিনের ব্যবধান। দিনটি ছিল গত ১৪ জানুয়ারি—৩০ পৌষ। সারা দেশে সেদিন শীতের সঙ্গে কুয়াশা আর কনকনে বাতাস বয়ে যায়। কুয়াশার কারণে আকাশপথ, নৌপথ আর সড়কপথে চলাচল ব্যাহত। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৭ দশমিক ২ সেলসিয়াসে নেমে যায় তেঁতুলিয়ায়, যা ঢাকায় ছিল ১২ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আজ শনিবার ১৮ জানুয়ারি, অর্থাৎ ৪ মাঘ। আবহাওয়ার মেজাজ বা আচরণ—সবই যেন উল্টো। কুয়াশার দাপট নেই। নেই কনকনে শীত। হিমেল বাতাসও বইছে না। উল্টো মেজাজ দেখিয়ে সূর্য আলো ছড়াচ্ছে। সূর্যালোকের সঙ্গে রয়েছে উষ্ণতা। এই উষ্ণতায় তাপমাত্রা বেড়েছে। পড়ছে গরম।

আরও-পড়ুনঃ মুরগির মেটে বা লিভার খাওয়া স্বাস্থ্যের পক্ষে উপকারি না ক্ষতিকর? জেনে নিন

সর্বনিম্ন তাপমাত্রা আজ সকালে ছিল শ্রীমঙ্গলে ১১ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকায় হয়েছে ১৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা গতকাল ছিল কক্সবাজারে ৩১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকায় ছিল ২৯ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তাই মাঘের দিনের প্রকৃতি কি তাহলে রুষ্ট? কেনইবা এই আচরণ? মাঘের শীত কি নিল বিদায়?

আবহাওয়া বিশেষজ্ঞরা জানান, আকাশে কিছুটা মেঘ রয়েছে। কোথাও কোথাও সূর্যের আলো রয়েছে। এসব কারণে তাপমাত্রা বেড়েছে। জানুয়ারি মাসের শেষ দিকে কিছুটা শীত পড়বে। তবে আগের মতো না হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি।

রাজধানী ঢাকায় তাপমাত্রা খানিকটা পড়লেও মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ পড়বে রংপুর, রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের কিছু কিছু জায়গায়। সেখানে তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস বা তার কিছু নিচে নামলেও ঢাকাতে ১২ থেকে ১৪ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে থাকার সম্ভাবনাই বেশি।

তবে সর্বোচ্চ তাপমাত্রার সঙ্গে সর্বনিম্ন তাপমাত্রার ব্যবধান ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস বা তার কিছু বেশি হতে পারে। এ ক্ষেত্রে শীত জেঁকে হয়তো বসতে পারবে না। মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়লেও ঢাকা শহরের ওপর এটি দীর্ঘস্থায়ী হবে না।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরিচালক সামছুদ্দিন আহমেদ প্রথম আলোকে বলেন, গতকাল রংপুর অঞ্চলে সামান্য বৃষ্টি হয়েছে। দেশের কোথাও কোথাও আজও আকাশে মেঘ রয়েছে। মেঘের সঙ্গে অনেক জায়গায় সূর্যের আলো রয়েছে।

এ কারণে তাপমাত্রা বেড়েছে। মেঘ কেটে গেলেও শীত কিছুটা পড়বে। ২৪ জানুয়ারি থেকে সারা দেশে তাপমাত্রা কমবে। তবে ডিসেম্বর থেকে মধ্য জানুয়ারি পর্যন্ত যেভাবে তাপমাত্রা কমেছিল, সেভাবে নাও হতে পারে। অবশ্য বাতাস থাকলে শীতের অনুভূতি বেশি লাগতে পারে।

আরও-পড়ুনঃ নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলায় ক্ষুদ্র জাতিসত্তার ষষ্ঠ শ্রেণির স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টা

আজ সকালে আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাস থেকে জানা গেছে, গতকাল দেশের বেশির ভাগ স্থানে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াস বা এর কাছাকাছি ছিল। রংপুর বিভাগ কিছুটা শীতল থাকলেও এখানে সামান্য বৃষ্টি হয়েছে।

তেঁতুলিয়ায় ১ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। আগামী ২৪ ঘণ্টায় দেশের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে। আগামী তিন দিন রাত ও দিনের তাপমাত্রা কমতে পারে।


সুত্র

Facebook Comments