Former Chief Minister of Uttar Pradesh admitted to hospital

হাসপাতালে ভর্তি উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী

হাসপাতালে ভর্তি মুলায়াম সিং যাদব। সমাজবাদী পার্টির প্রতিষ্ঠাতা এবং উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বর্তমানে লখনউয়ের মেদান্তা হাসতাপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

জানা গিয়েছে, রবিবার মধ্যরাতে হঠাতই পাকস্থলী সংক্রান্ত সমস্যার কথা জানান প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। ঠিক এরপরেই তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পাশাপাশি এও জানা যায়, শেষ পাঁচদিনে এই নিয়ে দ্বিতীয়বার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে তাঁকে। বুধবারও তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আরও পড়ুন: পাক অধিকৃত কাশ্মীরের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে ভারতীয় সেনা : ভিকে সিং

পার্টির তরফে মুখপাত্র রাজেন্দ্র চৌধুরী জানান, মুলায়াম সিং যাদব রুটিন চেক-আপের জন্য মেদান্ত হাসপাতালে গিয়েছিলেন। তবে ডাক্তাররা তাঁকে পাকস্থলি সংক্রান্ত কিছু পরীক্ষা এবং পর্যবেক্ষণের জন্য ভর্তি করা হয়েছে। বুধবার ভর্তির পরে শনিবার তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়। আবারও রবিবার পাকস্থলিতে সমস্যার কথা জানালে তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

মুলায়াম সিং যাদবের হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান রাত ১টা ২২ মিনিটে ট্যুইট করে জানান, “মুলায়াম সিং যাদবের হাসপাতালে ভর্তির খবর পেয়েছি, ভগবানের কাছে ওনার সুস্বাস্থ্য প্রার্থনা করি”।

পাশাপাশি রবিবারই হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়ায় হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং-কে। তাঁকে দিল্লির এইমস হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সন্ধ্যায় হঠাতই বুকে ব্যাথা শুরু হয় তাঁর, এরপরই তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। রাত ৮ টা ৪৫ মিনিট নাগাদ তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আপাতত কার্ডিও থোরাসিক বিভাগে চিকিৎসাধীন তিনি।

আরও পড়ুন: গোপালগঞ্জে নতুন ৬ জনের করোনাভাইরাস পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে

চিকিৎসকরা বিশেষ ভাবে নজর রাখছেন তাঁর শারীরিক অবস্থার উপর। দিল্লি এইমসের কার্ডিওলজি বিভাগের প্রধান ড. নীতিশ নায়েকের তত্ত্বাবধানে তাঁর চিকিৎসা চলছে। এখনও পর্যন্ত তাঁর শারীরিক অবস্থার বিষয়ে কিছু জানা যায়নি।

একাধিক কংগ্রেস নেতা ট্যুইট করে তাঁর দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন।(kolkata new) কিছুদিন আগেই সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে দেশের লকডাউন ও লকডাউন পরবর্তী পরিস্থিতি নিয়ে কেন্দ্রের কাছে প্রশ্ন রাখেন মনমোহন সিং।

তৃতীয় দফার লকডাউনের মাঝেই একদিনে দু’জন বরিষ্ঠ নেতার অসুস্থতার খবরে শোকাহত অনেকেই। ট্যুইটের মাধ্যমে অনেকেই দ্রুত সুস্থতা প্রার্থনা করেছেন।

আরও পড়ুন:অদৃশ্য এই প্রাণঘাতী ভাইরাসের অসময়ে এ দেশের কিছু মানুষের চুরির গল্প

Facebook Comments