ভারতে থাকা বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীদের ফেরত নেবে হাসিনার সরকার
ভারতে থাকা বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারী ফেরত নেবে হাসিনার সরকার

ভারতে বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীদের ফেরত নেবে বাংলাদেশ। এমনটাই জানালেন বিদেশমন্ত্রী একে আব্দুল মোমেন। তিনি জানিয়েছেন, ভারতে কোনও বাংলাদেশি নাগরিক থাকলে ফেরত নেওয়া হবে।         

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন ঘিরে উত্তাল দেশের বিভিন্ন জায়গা। সারা দেশে নাগরিকপঞ্জি চালু করার কথা ঘোষণা করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। প্রশ্ন উঠেছে, অনুপ্রবেশকারী সনাক্ত করা গেলেও কীভাবে ফেরত পাঠাবে ভারত সরকার? এর আগে ঢাকা স্পষ্ট জানিয়েছিল, ভারতে অবৈধভাবে বসবসকারী বাংলাদেশি নাগরিক নেই। বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী বিজিবি-র একটি অনুষ্ঠানে বলেন, নয়াদিল্লি আশ্বস্ত করেছে,”জোর করে কাউকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হবে না। অবৈধভাবে কোনও বাংলাদেশি থাকলে যথাযথ প্রক্রিয়ায় তাদের গ্রহণ করা হবে। ”  

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের প্রতিবাদে ভারতের একাধিক জায়গায় চলছে তুমুল বিক্ষোভ। বাংলাদেশের ক্ষমতাসীন সরকারের নীরবতা নিয়ে  প্রশ্ন তুলেছে বিরোধী বিএনপি। তবে মোমেন স্পষ্ট করেছেন, এনআরসি ভারতের অভ্যন্তরীণ ব্যাপার। এনিয়ে উদ্বেগের কিছু নেই।  

সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম এএনআই-কে দেওয়া সাক্ষাত্কারে মঙ্গলবার অমিত শাহ বলেছেন, ”গোটা দেশে নাগরিকপঞ্জি নিয়ে এখনও পর্যন্ত কোনও আলোচনা বা বিতর্ক হয়নি।” তার আগে নরেন্দ্র মোদী রবিবার দিল্লির সভায় স্পষ্ট করেন, ”১৩০ কোটি দেশবাসীকে আশ্বস্ত করতে চাই, ২০১৪ সালে আমার সরকার আসার পর থেকে এনআরসি নিয়ে কোনও আলোচনাই হয়নি। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মেনে অসমে এনআরসি হয়েছে। ” তিনি আরও বলেন,”মিথ্যা রটানো হচ্ছে। অনেক নেতা টিভি চ্যানেলে দাবি করছেন, গোটা দেশে এনআরসি করতে বিশাল খরচ বইতে হবে। কিন্তু যে জিনিস নেই, তার জন্য কেন মগজ লাগাচ্ছেন?”  

আরও পড়ুন- কাউন্টারে বসে টিকিট বিক্রি থেকে কবাডির প্যাচ, কতটা সফল হবেন কঙ্গনা!

বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারী

Facebook Comments