হিন্দু হওয়ায় দানেশ কানেরিয়াকে এক টেবিলে খেতে দিতে না পাক ক্রিকেটাররা, শোয়েব আখতার
হিন্দু হওয়ায় দানেশ কানেরিয়াকে এক টেবিলে খেতে দিতে না পাক ক্রিকেটাররা, শোয়েব আখতার

শুধুমাত্র হিন্দু হওয়ার কারণে পাক ক্রিকেটার কানেরিয়ার সঙ্গে বৈষম্যমূলক আচরণ করা হয়েছিল। নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে বিতর্কের মাঝে বিস্ফোরক দাবি করলেন শোয়েব আখতার। তাঁর কথায়, ”হিন্দু হওয়ার জন্য এক টেবিলে খেতে দেওয়া হত না।”   

পাকিস্তানি টিভি চ্যানেলে পিটিভি স্পোর্টসে ‘গেম অন হ্যায়’ অনুষ্ঠানে শোয়েব আখতার বলছেন,”আঞ্চলিক ব্যাপার নিয়ে আমার কেরিয়ারে দু-তিনজনের (ক্রিকেট দল) সঙ্গে ঝামেলা হয়েছে। যেমন- করাচি, পঞ্জাব বা পেশোয়ার। দানেশ কানেরিয়াকে এক টেবিলে খেতে বসলে ভ্রু কোঁচকাতেন অধিনায়ক। ধর্মের কারণে খাবার তুলতে দেওয়া হতো না কানেরিয়াকে।”   

দানেশ কানেরিয়াকে সঙ্গে বৈষম্যমূলক আচরণের প্রতিবাদ করেছিলেন শোয়েব। তাঁর কথায়,”আমি বলেছিলেন, অধিনায়ক তুমি ঘরে। তোর দেশকে জিতিয়েছে ও। দানেশ না থাকলে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে জিততাম না। বড় বড় ব্যাটসম্যানকে ও আউট করেছে। আমি তো টেলএন্ডারদের ৪ উইকেট নিয়েছিলাম। কেন কৃতিত্ব দিচ্ছেন না?” 

শোয়েব আরও বলেন,”ধর্ম বা আঞ্চলিক বৈষম্য আমি পছন্দ করি না। পাকিস্তানে জন্ম নেওয়া হিন্দুর দেশের প্রতিনিধিত্ব করার অধিকার রয়েছে। একজন হিন্দুর জন্য ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজ (২০০৫) জেতার পর আমি সতীর্থ বলেছিলাম।” 

মনসুর আলি খান পতৌদি, মহম্মদ আজহারউদ্দিনরা নেতৃত্ব দিয়েছেন ভারতকে। এখনও চুটিয়ে খেলছেন মহম্মদ সামিরা। কিন্তু পাকিস্তানে মাত্র ২ জন হিন্দু ক্রিকেটার খেলার সুযোগ পেয়েছেন। অনিল দলপতের পর দানেশ কানেরিয়া পাকিস্তানের প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন। ৬১ টেস্টে ৩৪.৭৯ গড়ে দানেশের সংগ্রহ ২৬১টি উইকেট। ১৮টি একদিনের ম্যাচও খেলেছেন। টেস্টে পাকিস্তানের সর্বোচ্চ উইকেটশিকারির তালিকায় এখনও চতুর্থস্থানে দানেশ কানেরিয়া।     

আরও পড়়ুন- বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী এশিয়া একাদশ ম্যাচে পাকিস্তানি ক্রিকেটার ?

Source link

Facebook Comments